তোমার চুল পড়া রোধে সহজ কিছু টিপস

চুল পড়ার সমস্যা কম বেশি সবারই আছে। কারও চুল একটু কম পড়ে আবার কারও চুল একটু বেশি পড়ে। তাই চুল পড়া বন্ধ করতে পেঁয়াজের রসের উপকারিতা অপরিসীম।

নতুন চুল গজানোর জন্য প্রায় অনেকে পেঁয়াজের রস ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু অনেকেই জানেন না যে কীভাবে পেঁয়াজের রস ব্যবহার করতে হয়। চুল পড়া যেমন কমে যায় পেঁয়াজের রস ব্যবহারের ফলে, তেমনি চুলের গোড়া শক্তও হয়।

তবে পেঁয়াজের রস ব্যবহারের আগে জানা দরকার এর উপকারিতা সম্পর্কে। এক ধরনের হরমোনের বৃদ্ধি ঘটে পেঁয়াজের রস ব্যবহারের ফলে। পেঁয়াজের রস ব্যবহারের ফলে যেমন চুল পড়া বন্ধ হয়, তেমনি নতুন চুল গজায় এবং চুল লম্বা হয়। এসব তথ্য অনেক গবেষণায় উঠে এসেছে।

কীভাবে মাথায় পেঁয়াজের রস ব্যবহার করবেন তার পরামর্শগুলো একবার এক নজরে দেখে নিতে পারেন।

পেঁয়াজ কেটে ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এর পর রস বের করে নিয়ে মাথার ত্বকে লাগাতে হবে। ৩০ থেকে ৪০ মিনিট অপেক্ষার পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

পেঁয়াজের রসের সঙ্গে হালকা গরম পানি মিশিয়ে নিলে ভালো হয়। গোসলের পর সেই পানি দিয়ে মাথা ভালো করে ভিজিয়ে নিতে হবে। পরের দিন পর শ্যাম্পু করে ফেলতে হবে। মাথা থেকে পেঁয়াজের গন্ধ আসলেও চুলের জন্য বেশ উপকারী।

পেঁয়াজের রসের সঙ্গে নারকেল তেল এবং কয়েক ফোটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে মাথার ত্বকে লাগাতে পারেন। ঘণ্টাখানেক পর শ্যাম্পু দিরে ধুয়ে ফেলুন।

এছাড়া দুই চা চামচ পেঁয়াজের রসের সঙ্গে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে চুলের গোড়ায় লাগাতে পারেন। তার পর ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিরে ধুয়ে ফেলুন।

পেঁয়াজ ভালো করে ব্লেন্ড করে নিয়ে অলিভ অয়েলের সঙ্গে মিশিয়ে মাথার ত্বকে লাগান। তার পর দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করে শ্যাম্পু দিরে ধুয়ে ফেলুন। তারপর নিজেই দেখুন পেঁয়াজের রসের ফলাফল।

পেঁয়াজের রসের ব্যবহারের ফলে আপনার চুল হবে সতেজ, মজবুত, মিশ্রন, কোমল ও ঝরঝরে।